শিরোনামঃ

রাঙামাটিতে ইউপি নির্বাচন সামনে রেখে জনসংযোগে সম্ভাব্য প্রার্থীরা

সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচারণা এখনও জমজমাট হয়ে না উঠলেও জনসংযোগে মাঠে নামছেন স্ব স্ব ইউনিয়ন পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থীরা। পাশাপাশি নিজ নিজ দলের সমর্থন পেতে লবিং-তদবিরেও ব্যস্ত চেয়ারম্যান EC_Logo_প্রার্থীরা।
এদিকে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয়ভাবে অংশ নেয়ার জন্য প্রস্তুতি চলছে শাসক দল আওয়ামী লীগ এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি)। তবে কোনো দলের পক্ষে এখনও দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়নি।
এছাড়া পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রধান আঞ্চলিক সংগঠন জনসংহতি সমিতির মধ্যেও (জেএসএস) স্বতন্ত্র প্রার্থী দিয়ে এবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেয়ার চিন্তা-ভাবনা চলছে বলে জানা গেছে। তবে বিষয়টি নিয়ে এখনও দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়নি। দলের সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল নেতারা এসব কথা বলেন।
জানা যায়, এবার ইউনিয়ন পরিষদে জেএসএস দলীয়ভাবে অংশ নিলে সংখ্যাগরিষ্ট আসন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তাদের। একাধিক মহলের সঙ্গে কথা বলে তারা মন্তব্য করে বলেন, জেলায় যেসব ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে প্রায় সবকটিতে একচ্ছত্র রাজনৈতিক প্রভাব রয়েছে জেএসএসের। প্রায় ইউনিয়নে জনসমর্থনে শীর্ষে দলটি। এছাড়া অন্য আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠন ইউনাইটেড পিপল ডেমোক্রেটিক ফ্্রন্টেরও (ইউপিডিএফ) বিভিন্ন ইউনিয়নে রাজনৈতিক প্রভাব রয়েছে। এ অবস্থার মধ্যে শাসক দল আওয়ামী লীগ এবং অন্য বড় দল বিএনপি এবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয়ভাবে অংশ নিলেও তেমনটা সুবিধা করতে পারবে না বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষক মহল।
অপরদিকে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ধীরে ধীরে তৎপরতা বাড়াচ্ছেন স্ব স্ব এলাকার সম্ভাব্য প্রার্থীরা। তবে প্রচারণা এখনও ব্যাপক আকারে বিস্তার লাভ করেনি। বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানসহ এলাকায় জনসংযোগ শুরু করে দিয়েছেন সম্ভ্যাব্য প্রার্থীরা।
একাধিক সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর সঙ্গে কথা বললে তারা জানান, যার যার অবস্থান থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতার প্রস্তুতি চালাচ্ছেন। পাশাপাশি নিজ নিজ দলের মনোনয়ন পেতেও দলে ধরনা দিচ্ছেন তারা।
নানিয়ারচর উপজেলার ঘিলাছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান অমর জীবন চাকমা বলেন, তিনি এবারও নির্বাচন করবেন। এবার তার বিপরীতে প্রতিদ্বন্ধী হতে পারেন প্রায় ৭-৮ প্রার্থী। তিনি এবার ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ হবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। তবে তিনি নির্বাচন করবেন স্বতন্ত্র হিসেবে।
জেলা নির্বাচন অফিস জানিয়েছে, নবগঠিত বিলাইছড়ির বড়থলীসহ জেলায় মোট ৫০টি ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে। সেগুলোর মধ্যে এবার নির্বাচন হবে ৪২ ইউনিয়ন পরিষদে। মেয়াদ শেষ না হওয়ায় বিলাইছড়ির বড়থলীসহ লংগদুর সাত ইউনিয়ন পরিষদে এবার নির্বাচন হবে না। জেলায় এবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।
তবে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রথমবারের মতো দলীয় প্রার্থী নিয়ে অংশ নেয়ার জন্য কেন্দ্রের নির্দেশে প্রস্তুতি শুরু হলেও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে শংকা প্রকাশ করেন শাসক দল আওয়ামী লীগের জেলা সভাপতি ও সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার। এ ব্যাপারে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত জেলা কৃষক লীগের সম্মেলনে অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, জেএসএস অস্ত্রের ভাষায় কথা বলছে। তারা অস্ত্রশক্তি প্রয়োগ করে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে জয় ছিনিয়ে নেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। অস্ত্র দিয়ে ভোট ডাকাতি করতে চায় জেএসএস। তাদের কাছে সাধারণ মানুষ জিম্মি। নির্বাচনে ৩০-৩৫ ইউনিয়ন পরিষদ দখলে নেয়ার চেষ্টা করছে জেএসএস।
দলীয় সূত্র জানায়, এবার রাঙামাটি জেলায় যেসব ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন হবে সেগুলোর মধ্যে কম্পক্ষে ৩০টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থী দিতে পারে আওয়ামী লীগ।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মুছা মাতব্বর বলেন, কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থী বাছাই করবে জেলা কমিটি। ইতিমধ্যে প্রার্থী যাচাই বাছাই শুরু হয়েছে। তবে সবগুলো ইউনিয়ন পরিষদে এখনও দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়নি। ইউনিয়ন পরিষদের সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শতভাগ আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন, আশংকার কোনো সম্ভাবনা নেই।
অন্যদিকে ইউনিয়ন পরিষদে দলীয়ভাবে অংশ নেয়ার বিষয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি মো. শাহ আলম বলেন, প্রস্তুতি চলছে। এ জেলায় যেসব ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন হবে সবগুলোতে চেয়ারম্যান পদে বিকএনপির প্রার্থী থাকবেন।
এছাড়া পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রধান আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠন জেএসএস এর পক্ষে স্বতন্ত্র প্রার্থী দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেয়ার চিন্তাভাবনা চলছে বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে সংগঠনটির একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, বিষয়টি নিয়ে দলীয় চিন্তাভাবনা আছে। তবে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

Print Friendly, PDF & Email

Share This:

খবরটি 363 বার পঠিত হয়েছে


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

ChtToday DOT COMschliessen
oeffnen