শিরোনামঃ

পাহাড়ে নব নির্বাচিত মেয়রদের শপথ ২৪ জানুয়ারী

সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। পাহাড়ের নব নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলারদের শপথ গ্রহন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে। পাহাড়ের যে সব পৌরসভায় নির্বাচন হয় সেগুলো হচ্ছে রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি, মাটিরাঙ্গা, বান্দরবান এবং লামা।CHT 5 Mayor
রাঙামাটি পৌরসভার নির্বাচনে জেলা যুবলীগের সভাপতি আকবর হোসেন চৌধুরী (নৌকা) প্রতীকে ১৭ হাজার ৯শ৪৩ ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন জনসংহতি সমিতি সমর্থিত ডা. গঙ্গা মানিক চাকমা ( নারিকেল গাছ) তিনি পেয়েছিলেন ১০ হাজার ১শ ৯ ভোট। বর্তমান মেয়র ও বিএনপি প্রার্থী সাইফুল ইসলাম ভুট্রো (ধানের শীষ) মার্কায় ৭ হাজার ৩শ৫৫ ভোট পান।

আমাদের খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি জানান, আগামী ২৪ই জানুয়ারী শপথ বাক্য পাঠ করতে যাচ্ছেন খাগড়াছড়ি পৌরসভার ষষ্ঠ পরিষদের মেয়র-কাউন্সিলরবৃন্দ। বুধবার(২০ই জানুয়ারী) চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় সূত্র এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের পরিচালক (স্থানীয় সরকার বিভাগ) দীপক চক্রবর্ত্তী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম বিভাগের আওতাধীন জেলাসমূহের নবনির্বাচিত পৌরসভার মেয়র, সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং সাধারণ আসনের কাউন্সিলরবৃন্দের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত করতে গত ০৭ জানুয়ারী স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের স্মারক নং- ০০.০০০০.০৬৩.৩২.০০৩.১৫-২৭/৭ই জানুয়ারী মূলে আদেশ দেয়া হয়। এই লক্ষ্যে তিন ধাপে চট্টগ্রাম বিভাগের দশ জেলার নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরবৃন্দের (সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলরসহ) শপথ বাক্য পাঠ অনুষ্ঠান করার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

খাগড়াছড়ি ও মাটিরাঙা পৌরসভার মেয়র-কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণঃ
খাগড়াছড়ি জেলার খাগড়াছড়ি ও মাটিরাঙা পৌরসভার দুই মেয়র ও ২৪ কাউন্সিলরের শপথ গ্রহণ আগামী ২৪ই জানুয়ারী রোববার অনুষ্ঠিত হবে। নর্বনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে সকাল ১১টায় শপথ বাক্য পাঠ করাবেন চট্টগ্রাম বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার মোঃ রুহুল আমীন।
উল্লেখ্য, গতবছরের ৩০ই ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত পৌর নির্বাচনে খাগড়াছড়ি পৌরসভায় স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী রফিকুল আলম মোবাইল ফোন প্রতীক নিয়ে ৯৪১৪ ভোট পেয়ে জয়ী হোন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আওয়ামীলীগের প্রার্থী মোঃ শানে আলম নৌকা প্রতীকে ৫৫৩৭ ভোট। ১৯৮৪ সালে প্রতিষ্ঠিত খাগড়াছড়ি পৌরসভায় এর আগে কোন মেয়র দুই বার নির্বাচিত হননি। রফিকুল আলম দ্বিতীয় বার মেয়র নির্বাচিত হয়ে শেষ রেকর্ড ভাঙ্গলেন। ২০১১ সালের নির্বাচনেও রফিকুল আলম সম্মিলিত নাগরিক কমিটির ব্যানারে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হয়ে নির্বাচিত হন। এবারও তিনি একই ব্যানারে নির্বাচন করে জয়ী হয়েছে। মাটিরাঙা পৌরসভায় বিএনপি’র ধান শীষ প্রতীককে হারিয়ে ৭৩৩৮ ভোট পেয়ে নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী জয়ী হন। খাগড়াছড়ি ও মাটিরাঙা পৌরসভা ৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত। এর প্রতিটিতে একজন মেয়র, ৯জন সাধারণ আসনের কাউন্সিলর ও ৩জন করে সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর রয়েছে।

বান্দরবান ও লামা
বান্দরবান পৌরসভা নির্বাচনে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও আওয়ামীলীগৈর প্রার্থী বেবী ইসলাম (নৌকা) প্রতীকে ৭ হাজার ৭শ৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকতম প্রতিদ্বন্দ্ব ছিলেন জাতীয় পার্টির মিজানুর রহমান বিপ্লব (লাঙল) প্রতীকে ৪ হাজার ৪শ ৫ ভোট পান।

লামা পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী জহিরুল ইসলাম (নৌকা) প্রতীকে ৬ হাজার ৬শ ৬ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম বিএনপির প্রার্থী আমির হোসেন (ধানের শীষ) প্রতীকে ২ হাজার ৮শ ৩৫ ভোট।

Print Friendly, PDF & Email

Share This:

খবরটি 297 বার পঠিত হয়েছে


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

ChtToday DOT COMschliessen
oeffnen