শিরোনামঃ

বীর বাহাদুরকে ঠেকাতে বান্দরবানে বিদ্রোহী প্রসন্নকে সমর্থন জনসংহতি সমিতি’র

অতিথি প্রতিবেদক, সিএইচটি টুডে ডট কম।  দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী বীর বাহাদুরকে বান্দরবান-৩০০ নং আসনে পার্বত্য জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থি প্রসন্ন কান্তি তংচঙ্গ্যাকে সমর্থন জানিয়েছে।prossanon

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী বীর বাহাদুর নৌকা, একই দলের বিদ্রোহী প্রার্থি বহিস্কৃত জেলা সভাপতি প্রসন্ন কান্তি তঞ্চঙ্গ্যা টেবিল ঘড়ি, আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউ.পি.ডি.এফ) এর ছোটন কান্তি তঞ্চঙ্গ্যা হাতি এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লামা উপজেলার কামরুজ্জামান পেয়েছেন টিয়া মার্কা নিয়ে লড়ছেন। জনসংহতি সমিতির সূত্রে জানা গেছে, আদিবাসীদের সাংবিধানীক স্বীকৃতি না দেওয়া ও পার্বত্য শান্তি চুক্তির পূর্নাঙ্গ বাস্তবায়ন না করার কারনে জেএসএস তাদের সাবেক নেতা প্রসন্ন কান্তি তংচঙ্গ্যাকে সমর্থন জানিয়ে দলটি ইতিমধ্যে তাদের নেতাকর্মীদের কাজ করতে নির্দেশ প্রদান করেছেন। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, প্রসন্ন জনসংহতি সমিতি (জেএসএস)’র এর সমর্থন পাওয়ার পর আওয়ামীলীগের একাংশের ভোট পাবেন। অন্যদিকে বি.এন.পি-জামায়েত সমর্থকরা ভোট কেন্দ্রে গেলে আদর্শিক কারনে প্রসন্নকে বেছে নেবেন। আর সেই সমীকরনে বান্দরবান আসনে এবার চারবার নির্বাচিত এমপি বীর বাহাদুরের সাথে প্রসন্ন’র লড়ায় হবে হাডাহাড্ডি।

জেলা জনসংহতি সমিতির সাধারণ সম্পাদক ক্যা বা মং মার্মা প্রতিবেদককে বলেন, “জেএসএস থেকে ইতিমধ্যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রসন্নের পক্ষ্যে কাজ করা ও ভোট দেওয়ার জন্য”। জেএসএস এর কেন্দ্রিয় সহ-সভাপতি ঊষাতন তালুকদার রাঙামাটি ২৯৯ নং আসন থেকে নির্বাচন করলেও বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি আসনে পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠনটি তাদের প্রার্থী দেয়নি। পাহাড়ের সংগঠনটি শেষ পর্যন্ত বান্দরবান আসনে বীর বাহাদুর নাকি প্রসন্নকে সমর্থন দিচ্ছেন সে বিষয়ে জেলায় চলে আসছিল ব্যাপক আলোচনা। তবে বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে অপরগতা প্রকাশ করে প্রসন্ন কান্তি তংচঙ্গ্যার চীফ এজেন্ট মো: আবুল কাশেম চৌধুরী বলেন, “জনগনের ও কর্মীদের অনুরোধে প্রসন্ন নির্বাচন করছেন, তারাই ভোটে প্রসন্নকে নির্বাচিত করবেন”।

চারবারের নির্বাচিত সংসদ বীর বাহাদুর নাকি প্রসন্ন ৩০০ নং আসনের ১০ম সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত হবেন তা নিশ্চিত হতে অপেক্ষা করতে হবে, এমন মত ভোটারদের।

 

Print Friendly, PDF & Email

Share This:

খবরটি 223 বার পঠিত হয়েছে


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

ChtToday DOT COMschliessen
oeffnen