শিরোনামঃ

রাজশাহী মহানগর শাখা পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত

“চুক্তি বাস্তবায়নের আন্দোলনকে বেগবান করতে হবে”

সিএইচটি টুডে ডট কম ডেস্ক। জুম্ম স্বার্থ পরিপন্থী ও চুক্তি বিরোধী সকল কার্যক্রম প্রতিহত করে, পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়নই হোক যুব সমাজের দৃঢ় অঙ্গীকার” এই স্লোগানকে সামনে রেখে ২০শে মার্চ ২০১৮ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ স্টাডিজ (আইবিএস) অডিটোরিয়ামে পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের রাজশাহী মহানগর শাখার “১৯তম

dav

বার্ষিক শাখা সম্মেলন ও ২০তম কাউন্সিল” অনুষ্ঠিত হয়।
পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের রাজশাহী মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক দীপন চাকমার সঞ্চালনায় এবং সহ-সভাপতি রুপেশ চাকমার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রচার বিভাগের সদস্য ও বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের তথ্য ও প্রচার সম্পাদক দীপায়ন খীসা। এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর বিভাগের অধ্যাপক ড. আমিরুল ইসলাম কনক, পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জুয়েল চাকমা, আদিবাসী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি নকুল পাহান এবং বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সভাপতি এ এম শাকিল প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি তথ্য ও প্রচার বিভাগের সদস্য দীপায়ন খীসা বলেন, আজকে যারা নতুন কমিটিতে আসবেন তাদেরকে অবশ্যই পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নের আন্দোলনকে বেগবান করতে হবে। সেই সাথে সমতলের সকল আদিবাসীদের সাথে সমন্বয় সাধন ও দেশের শিক্ষিত প্রগতিশীল সমাজের সাথে আন্ত-যোগাযোগ বৃদ্ধি করতে হবে। ছাত্র রাজনৈতিক জীবন শেষ করে জনসংহতি সমিতির বিপ্লবী রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার জন্য তিনি উদাত্ত আহবান জানান এবং জনসংহতি সমিতি সেটাই ছাত্র সমাজের কাছে প্রত্যাশা করে। সেই সাথে তিনি বলেন সঠিক আদর্শে দীক্ষিত হয়ে দর্শনগত বিষয়ে পারদর্শী হয়ে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. আমিরুল ইসলাম কনক বলেন, পাহাড়কে রক্ষা করতে হলে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অধ্যয়নরত পাহাড়ী ছাত্র-ছাত্রীদেরকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। পাহাড়কে নিযে একটি মহল বৃহত্তর বাঙালি সমাজে ক্রুটিপূর্ণ তথ্য ছড়িযে দিচ্ছে। যার কারণে পাহাড়ী এবং বাঙালিদের মধ্যে মনস্তাত্ত্বিক ও সামাজিক বৈষম্য সৃষ্টি হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, যখনই পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নের জন্য পাহাড়ে কোন গণ-আন্দোলন গড়ে ওঠে তখন সেটেলারদের দিয়ে পাহাড়ে ধোঁয়াশার সৃষ্টি করা হচ্ছে। পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ দীর্ঘ সময় আন্দোলন করে উদ্যম যুবকে পরিণত হয়েছে। এ সকল ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন সংগ্রাম পরিচালনা করতে হবে।
অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ রাজশাহী মহানগর শাখার তথ্য ও প্রচার সম্পাদক মংক্যাওয়াইন রাখাইন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নকুল পাহান বলেন, পিসিপির দীর্ঘ লড়াই সংগ্রামের পথ ধরে এতদুর এসেছে। পাহাড়ে যেমন নিপীড়ন নির্যাতন চলছে তেমনি সমতলের আদিবাসীরাও নিপীড়ন নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। সে কারণে পাহাড় এবং সমতলে ঐক্যবদ্ধ লড়াই চালিয়ে যেতে হবে।
সম্মেলনে দীপন চাকমাকে সভাপতি, রাসেল চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক এবং মংক্যাওয়াইন রাখাইনকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের রাজশাহী মহানগর শাখার ২১ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটি গঠন করা হয়। নবগঠিত কমিটিকে শপথ বাক্য পাঠ করান পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সদস্য রেং য়ং ম্রো।
অবশেষে অনুষ্ঠানের সভাপতি এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ রাজশাহী মহানগর শাখার সহ-সভাপতি রুপেশ চাকমার সমাপনী বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে উক্ত বার্ষিক শাখা সম্মেলন ও কাউন্সিল সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

Share This:

খবরটি 107 বার পঠিত হয়েছে


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

ChtToday DOT COMschliessen
oeffnen