শিরোনামঃ

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপিকে রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সংবর্ধনা

অস্ত্রের ভাষায় যারা কথা বলে তাদের শিকড় কিভাবে উপরে ফেলতে হয় সেটি আওয়ামীলীগ জানে

সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশেসিং এমপি হুশিয়ারী উচ্ছারন করে বলেছেন, অস্ত্রের ভাষায় যারা কথা বলে, সন্ত্রাসী করে তাদের Pic-10-05-14-3--শিকড় সহ কিভাবে উপড়ে ফেলতে হয় তা আওয়ামীলীগের জানা আছে।

শনিবার রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপিকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, পার্বত্য অঞ্চলে গুটি কয়েক মানুষ সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজী, অপহরণ, হত্যা ও গুমের সাথে জড়িত। তাদের নির্মুল করতে সরকার অঙ্গীকারাবদ্ধ। এসব সন্ত্রাসীদের নির্মুল করতে যারা এ এলাকায় শান্তি চান, সম্প্রীতি চান, ছেলে মেয়েদের শিক্ষিত করতে চান তারা আমাদের পাশে থাকবেন বলেন তিনি আশা প্রকাশ করেন।
রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, মহিলা সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু, আওয়ামীলীগ সিনিয়র সহ-সভাপতি ও আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য মাহাবুবু রহমান, আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম, কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ আখতার, মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদিক জেবুন্নেছা রহিম, স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক স্মৃতি বিকাশ ত্রিপুরা, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ কাজল, ছাত্রলীগ সভাপতি শাহ এমরান রোকন সহ আওয়ামীলীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা বক্তব্য রাখেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে বীর বাহাদুর এমপি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে প্রকল্প গুলো বাস্তবায়নের জন্য অঙ্গীকার করেছেন তার এক চুলও এদিক ওদিক হবে না। ভালো কাজের বিরোধীরা সব সময় বিরোধীতা করতে থাকবে। আমরা আমাদের ভালো কাজ গুলো করে যাবো।
তিনি বলেন, আমি মনে করি কোন সংসদ সদস্যের কোন সন্ত্রাসী দল থাকতে পারে না। রাঙামাটি থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও চান না এখানে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজী হোক। সন্ত্রাস নির্মুলে আমার সেই ভাই অবশ্যই আমাদেরকে সহযোগিতা করবে এটা আমাদের বিশ্বাস। সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজী কোন দল নেই। আমরা অস্ত্রধারীদের বিশ্বাস করি না, সন্ত্রাসীকে বিশ্বাস করি না, তাদেরকে আশ্রয় ও প্রশ্রয়ও দিই না। যারা অস্ত্রবাজী করে, চাঁদাবাজী করে সন্ত্রাসী করে তারা শুধু আমাদের নয় দেশ ও জনগনের শত্রু। সকল রাজনৈতিক দল, সকল সম্প্রদায় মিলে আমরা পার্বত্য অঞ্চল থেকে সন্ত্রাস দমন করব। সন্ত্রাসীদের শিকড়সহ পার্বত্য অঞ্চল থেকে উপড়ে ফেলে দিবো। আমাদের রাজনৈতিক দল গুলোর মধ্যে কোন বিভেদ নেই। সকলেই আমরা মিলে মিশে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলবো। পার্বত্য অঞ্চলের জনগনের শান্তির জন্য, তাদের জান মাল রক্ষা করার জন্য এ অঞ্চলের সম্প্রীতি রক্ষার জন্য যা করা দরকার তা আমরা করতে প্রস্তুত রয়েছি। Pic-10-05-14-33
রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার বলেন, পাহাড়ের যারা অস্ত্রবাজী, চাঁদাবাজী করে তাদের বিরুদ্ধে পার্বত্য অঞ্চলের মানুষ ধীরে ধীরে ঐক্য বদ্ধ হচ্ছে। আর বেশীদিন সময় নেই যারা এসব অপকর্মের সাথে জড়িত রয়েছে তাদেরকে নির্মুল করে দিতে। তিনি বলেন, এই এলাকার জনগনই তাদের নির্মুল করে দিবে।
তিনি বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের উন্নয়নের আওয়ামীলীগ সরকার সব সময় বদ্ধ পরিকর। আওয়ামীলীগ থেকে বিজয় ছিনিয়ে নিয়ে গেলেও আওয়ামীলীগ রাঙামাটি জেলার উন্নয়নে এতটুকু কার্পণ্য করবে না। তিনি বলেন, পাহাড়ের আওয়ামীলীগ যে উন্নয়ন করেছে অতীতের কোন সরকার তা করতে পারেনি। কিন্তু আমাদের আঞ্চলিক দল গুলো সেসব উন্নয়ন কাজে সব সময় বাধা দিয়ে আসছিলো। আমরা তাও উন্নয়ন কাজে পিছপা হইনি।
এর আগে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপিকে রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগ সহ সকল অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।
#

Print Friendly, PDF & Email

Share This:

খবরটি 1,423 বার পঠিত হয়েছে


Subscribe to Comments RSS Feed in this post

One Response

  1. হাই! জুম্ম জািত বিস্ময়কর তুিম!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

ChtToday DOT COMschliessen
oeffnen